Header Ads

তিনটি ফিউচার টেকনোলজি যা খুব শীঘ্রই বাস্তবে পরিণত হচ্ছে!

টেকনোলজি বা প্রযুক্তি প্রতি মুহূর্তে আমাদের লাইফস্টাইল পাল্টে দিচ্ছে। আজকের এই আর্টিকেলে তিনটি এমন ভবিষ্যতের টেকনোলজি বা প্রযুক্তির কথা বলা হয়েছে যা খুব স্বল্প সময়ের ব্যাবধানে আমরা বাস্তবে পরিণত হতে দেখবো এবং ব্যাবহার করতে পারবো! 

অটোনোমাস রোবট



আমরা জানি যে রোবট আমাদের জীবনযাত্রা অনেকটা সহজ করে তুলতে পারে পাশাপাশি যেকোনো পরিশ্রমের কাজে সাহায্যও করতে পারে। কিন্তু স্মার্ট রোবটদের বিষয়টা একটু চিন্তা করা যাক! স্মার্ট রোবট তাদেরকে বলা হচ্ছে যেসব রোবটের স্বাধীনভাবে চিন্তা করার ক্ষমতা রয়েছে আমাদের মানুষের মতোই! একটা রোবট - যে কিনা বুদ্ধিদীপ্ত এবং লজিক্যালি চিন্তা করতে পারবে, সিদ্ধান্ত নিতে পারবে এবং সবকিছু অনুভব করতে পারবে আবেগের সাহায্যে। এদের বলা হচ্ছে অটোনোমাস রোবট।

বিজ্ঞানী এবং গবেষকেরা এই ধরণের রোবটগুলির ওপর পরীক্ষা নিরীক্ষা করছেন। অনেক রোবট ইতোমধ্যেই আর্মি মিশনের জন্যে তৈরি করা হয়েছে কিন্তু বিজ্ঞানীদের লক্ষ্য এমন রোবট নির্মাণ করা যেটি মানুষের দৈনন্দিন কাজে সহযোগিতা করতে পারবে।

ভাবুন, একটি রোবট আপনাকে ঘুম থেকে ওঠার পরে কফি দিচ্ছে এবং জিজ্ঞেস করছে আপনার কিছু লাগবে কিনা এবং তাকে বললে সে সকল সমস্যার সমাধান খুঁজে দিচ্ছে! আপনার কাজে সাহায্য করছে - কি অসাধারণ হবে তাইনা? সেই দিনটা আসতে খুব বেশি দেরী নেই...!

ফ্লায়িং কার 



এখনো এটা স্বপ্ন কিন্তু ২০৫০ সালের কাছাকাছি সময়ে এটা বাস্তবে পরিণত হবে। অনেক সায়েন্স ফিকশন মুভিতে ফ্লায়িং কারের উপস্থিতি চোখে পড়ে। এটা অনেক নিরাপদ এবং আকর্ষণীয়। বিজ্ঞানীরা ইতিমধ্যেই ব্যাবহার উপযোগী ফ্লায়িং কার বা উড়ন্ত যান তৈরিতে কাজ করে যাচ্ছেন। অনেক প্রতিষ্ঠান এই প্রোজেক্টটিকে স্পন্সর করছে। ফ্লায়িং কার ট্র্যাফিক জ্যামের সমস্যা দূর করতে এবং রাস্তার ব্যাবহার কমাতে সাহায্য করবে।

স্ক্রিনবিহীন ডিসপ্লে 



কোনোকিছু ডিজিটালি দেখানোর একটি অ্যাডভান্সড প্রযুক্তি হচ্ছে স্ক্রিন বিহীন বা স্ক্রিনলেস ডিসপ্লে। এর মাধ্যমে থ্রিডি এবং এইচডি রেজুলেশনের ছবি দেখানো সম্ভব। হলোগ্রাম হচ্ছে এই প্রযুক্তির সবচেয়ে পরিচিত উদাহারণ। ভবিষ্যতে এটি আরও উন্নতি লাভ করবে।

লিখাটি ভালো লেগে থাকলে দয়া করে নীচের শেয়ার বাটনে ক্লিক করে শেয়ার করুন। অদূর ভবিষ্যতের প্রযুক্তিগুলোর কথা অন্যদেরকেও জানান :) সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ পড়ার জন্য।

No comments: