Header Ads

অ্যাসগার্ডিয়ার মহাকাশে যাত্রা শুরু হল!

সম্প্রতি স্পেস নেশন অ্যাসগার্ডিয়া (ASGARDIA) প্রথমবারের মত মহাকাশে তাদের কার্যক্রম শুরু করল ! অ্যাসগার্ডিয়া (ASGARDIA) হল সম্পূর্ণ মহাকাশ ভিত্তিক রাষ্ট্রীয় বাবস্থা। কৃত্রিম উপগ্রহ যেমন চাঁদের মত পৃথিবীকে প্রদক্ষিন করে তেমনি অ্যাসগার্ডিয়াও পৃথিবীকে প্রদক্ষিন করবে।তাই একে satellite দেশ বললেও ভুল হবে না।আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন(ISS) এর প্রায় অনুরূপ কিন্তু অনেক বড় এই বাবস্থার থাকবে নিজস্ব রাষ্টীয় নীতি,মন্ত্রিপরিষদ,রাষ্ট্রনায়ক,শিক্ষা-চিকিৎসা বাবস্থা।জাতিসংঘের অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে প্রোজেক্টটি,অনুমতি পেলে সম্পূর্ণ বেসরকারি উদ্যোগে অদূর ভবিষ্যতে মহাকাশকেন্দ্রিক এই রাষ্ট্র বাবস্থাটি উৎক্ষেপিত হতে পারে। যার নাগরিক হতে পারে যে কোন সাধারন পার্থিব মানুষ।দাপ্তরিকভাবে নিবন্ধন চলছে।এখন পর্যন্ত এই রাষ্ট্রে যোগদানে ইচ্ছুকের সংখ্যা ৩০০,০০০ প্রায়,যার মধ্যে মাত্র ৫০০ জন বাংলাদেশি ও ৬০১৬ জন ভারতীয় আছেন।

অ্যাসগার্ডিয়ার মহাকাশে যাত্রা শুরু হল!

গত পরশু স্পেস নেশনটি ০.৫ টেরাবাইট তথ্য নিয়ে একটি কিউবস্যাট স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করেছে । এই মুহূর্তে জাতিসংঘের অনুমতি, ফান্ড ও প্রযুক্তি না থাকায় এটিকে এখনই উৎক্ষেপণ করা সম্ভবপর না । আর তাই নিবন্ধিত অ্যাসগার্ডিয়ানদের কথা মাথায় রেখে প্রতিটি নাগরিকের সাবমিট করা তথ্য ভরে দেওয়া হয়েছে এই দুধের বাক্সের সাইজের পুঁচকে স্যাটেলাইটটি । সিগ্ন্যাস নামক নাসার এক সাঁটল রকেটে করে একে মহাশূন্যে পাঠানো হয় ! তবে সাঁটলটি আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে ডকইয়ার্ডে ল্যান্ড করে মহাকাশচারীদের সরঞ্জাম পৌঁছে দিয়ে কিছুটা ভর কমিয়ে এটি আরও উচ্চতায় যাবে । সেখানে নির্দিষ্ট কক্ষপথে এই অ্যাসগার্ডিয়া-১ স্যাটেলাইটটিকে স্থাপন করা হবে !

গত বছর রাশিয়ান ধনকুবের ও বিজ্ঞানী ইগার আস্যুরবেইলি অ্যাসগার্ডিয়া স্পেস নেশনের প্রস্তাব করেন । তবে পৃথিবীর মতই সেখানের জীবনযাত্রা হবে । গণতান্ত্রিক নির্বাচনের মাধ্যমে সেখানে রাষ্ট্রনায়ক নির্বাচিত হবে । তাই , আমার মত যারা ভেবেছিলেন যে অ্যাসগার্ডিয়া হয়ত পৃথিবীর মত স্বার্থান্বেষী নেতাদের হাত থেকে মুক্ত থাকবে, তাদের ভাবনার সেগুরে বালি । অ্যাসগার্ডিয়ার ভাইস প্রেসিডেন্ট লেনা দে উইন্নে বলেন," আপনাদের শুনে হাসি পাচ্ছে না ?? হাসারই কথা । কিন্তু , অ্যাসগার্ডিয়া স্পেস নেশন মহাশূন্যে অবশ্যই একদিন বিরাজ করবে । আর তাই আমরা এই স্যাটেলাইটটিতে আমাদের উদ্দেশ্য, আমাদের লোগো , নাগরিকদের তথ্য,ছবি ...সব ভোরে দিয়েছি ! "

তাই যারা নিবন্ধন করেছেন তারা ভাবতেই পারেন যে তার কিছু তথ্য পৃথিবীর বাহিরে অবস্থান করছে ! সত্যি, আমি নিজেই রোমাঞ্চিত হচ্ছি ! বিজ্ঞান ও গবেষণার জন্য স্বর্গ হতে পারে রাষ্ট্রটি।তাই যাদের উচ্চতাভীতি (aerophobia) নেই এবং দুঃসাহসিক মনের অধিকারী তারা চাইলে অনলাইনে নিবন্ধন করতে পারেন এই ঠিকানায়ঃ https://asgardia.space/en/
এই হানাহানি,রেষ,ক্রোধ আর অসততার পৃথিবী থেকে হয়ত মুক্তি পেলেও পেতে পারেন!!!

Our People, Our Stars, Our Unity
Only space-time we lean on.

জয় অ্যাসগার্ডিয়া!

সূত্রঃ

লেখক পরিচিতি
লিখেছেনঃ জ্যোতির্বিদ্যা ও সৃষ্টিতত্ত্ব পেইজ

লিখাটি ভালো লেগে থাকলে সোশ্যাল নেটওয়ার্কে এবং নিজের বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন। নিয়মিত এমন লিখা পেতে EduQuarks এর সাথেই থাকুন। যুক্ত হোন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে এবং ফেসবুক পেইজে। সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

No comments: