Header Ads

মুভি রিভিউঃ Manhattan Murder Mystery (1993)

মুভি রিভিউঃ Manhattan Murder Mystery (1993)

Name: Manhattan Murder Mystery  (1993)
Genre - Comedy, Murder Mystery

লিপটন দম্পতির পাশের ফ্ল্যাটে নতুন প্রতিবেশী এসেছে, লিফট এ দেখা। কুশল বিনিময় আর এক কাপ চায়ের আড্ডা তো চলেই। জনাব ল্যারি লিপ্টন সাহেব অবশ্য ব্যাপারটা বেশ এঞ্জয় করছেন না। টিভিতে একটু পরেই সিনেমা শুরু হবে, তবে তার স্ত্রী ক্যারোল আবার বৃদ্ধ দম্পতির সাথে বেশ খোশালাপ এ মেতে উঠেছেন।

পরের দিনের কথা, নতুন প্রতিবেশীর বৃদ্ধ স্ত্রী হুট করেই মারা যান, হার্ট অ্যাটাক বলা হচ্ছে। বেশ শকিং একটা নিউজ, গতকালই আলাপ হলো সবে আজই.... স্বাভাবিক মৃত্যু কিন্তু ক্যারোল লিপটন কেন যেন মেতে নিতে পারছেন না। কিসের যেন আভাস পাচ্ছেন, সন্দেহ তখনো পুরোপুরি জেগে উঠে নি। তার ধারণা জাগে, এটি খুন আর এই ধারণা হওয়ার কারণ যখন প্রতিবেশীর কিচেনে!

উডি অ্যালেনের সিনেমা মানেই যেকোন অবস্থায় মন ভালো করার ওষুধ। রহস্যঘেরা থিমেও সাস্পেন্স এ দরদর করে ঘাম বাহানোর চেয়ে উপযুক্ত হিউমারের মিশেলে পুরো ব্যাপারটাকে লাইটলি উপস্থাপনে উস্তাদ তিনি। আর এ সিনেমায় উডি অ্যালেনের ভাইবটা পুরোপুরিই ছিল।

ধরুন আপনার পাশের বাসায় হঠাৎ খুন হলে স্বভাবতই যে সন্দেহ, রহস্য মনে দানা বাঁধবে, আশেপাশে একটু ছোঁকছোঁক এর যে স্বভাবটা একদমই সচরাচর যা ঘটে সে ব্যাপারগুলোই উঠে এসেছে Diane Keaton এর করা ক্যারোল চরিত্রে, এ চরিত্রে পারফেক্ট কাস্টিং। দারুণ অভিনয় করেছেন। তার হাজবেন্ড ল্যারি লিপটন খানিক ভীতু প্রকৃতির মানুষ, অহেতুক ঝঞ্জাট এ নেই, স্বাভাবিক হোক আর অস্বাভাবিক আমার কি? শুধুশুধু কেন বিপদ টেনে আনবো বাপু, এই টাইপ চরিত্র আর তাতে অভিনয় করেছেন ডিরেক্টর সাহেব নিজেই (উডি অ্যালেন)। Allen আর Diane Keaton এর জুটিটা দারুণ।

ইউজুয়াল মার্ডার মিস্ট্রি, ফুল অফ সাস্পেন্স, উত্তেজনা এ ব্যাপারগুলোতে যান নি অ্যালেন। চেনা জানা ব্যাপারগুলোকেই খুব লাইটলি তুলে এনেছেন এবং দারুণ ডিরেকশানে সেগুলো দেখতে গিয়ে বেশ আরাম লেগেছে। টুইস্ট, খুন করার কারণ সবকিছুই বেশ সিম্পল। সঠিক সময়েই সব খোলাসা হয়, তার আগে কোথাও ঝুলে যেতে দেন নি ডিরেক্টর। পুরোটা সময় পর্দায় টেনে ধরে রেখেছেন।
চমৎকার ক্যারেক্টারাইজেশন, দারুণ চিত্রনাট্য, চমৎকার ডায়লগ আর পর্যাপ্ত হিউমারে ভরপুর সিনেমা। একটা লং টেক ছিল রেস্টুরেন্টের টেবিলে চারজনের আড্ডার সিনে- কে খুনি, মোটিফ কি সেগুলো নিয়ে বেশ আলোচনায় মেতে উঠেছে তারা চারজন। ভারী, সাস্পেন্সফুল সংলাপ এর পাশাপাশি আবার চরম হিলারিয়াস সংলাপ সেইসাথে ক্লোজ শট আর টু শটস এ পুরো পরিবেশটাই জমে উঠেছিল বেশ।

রহস্যেঘেরা আর হাস্যরস মেশানো এ সিনেমা নির্দ্বিধায় দারুণ এঞ্জয়াবল।

লিখাটি ভালো লেগে থাকলে সোশ্যাল নেটওয়ার্কে এবং নিজের বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন। নিয়মিত এমন লিখা পেতে EduQuarks এর সাথেই থাকুন। যুক্ত হোন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে এবং ফেসবুক পেইজে । সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

No comments: