Header Ads

বই রিভিউঃ দি একসরসিস্ট

বই রিভিউঃ দি একসরসিস্ট

বইঃ দি একসরসিস্ট
লেখকঃ উইলিয়াম পিটার ব্লেটি
ভাবানুবাদঃ হুমায়ুন আহমেদ
ঘরানাঃ হরর থ্রিলার
পৃষ্ঠাঃ ১০৪
প্রকাশনীঃ সেবা
প্রথম প্রকাশঃ ১৯৯২

কাহিনী সংক্ষেপেঃ উত্তর ইরাকের মরুভুমিতে বসে খোদাইকৃত জিনিসের তালিকা করছিলেন কিউরেটর। হঠাৎ তিনি দেখলেন দুর থেকে একজন বৃদ্ধ এগিয়ে আসছে তার দিকে।বৃদ্ধটি কিউরেটরের কাছে এসে টেবিলের উপর রাখা একটি মুর্তি দেখে থমকে গেলেন। মুর্তিটি দেখতে চাইলে কিউরেটর বললেন অবশ্যই। এটি শয়তানের মুর্তি ফাদার মেরিন। মেরিন মুর্তিটি স্পর্শও করলেননা। তিনি নিশ্চিত যে এই অশুভ শক্তিটির সাথে তার আবার দেখা হবে।

এরপে মূল কাহিনী তে দেখা যায় ক্রিস ম্যাকলিন নামক এক অভিনেত্রি তার বাড়িতে কয়েকদিন যাবৎ অদ্ভুত ধরনের কিছু শব্দ শুনতে পান। প্রথমে তিনি ধারনা করেন যে তার মেয়ে রেগান হয়তো শব্দ করে রাতের বেলায়। কিন্তু নাহ্। তবে শব্দটি তার মেয়ের রুম থেকে আসলেও রেগান কোনো শব্দ করছেনা। তাহলে কিসের শব্দ? তার ব্যাপারটা অস্বস্তি লাগলেও তিনি ইদুঁরের শব্দ বলে বিষয়টা উড়িয়ে দিলেন। তবে একটা অস্বাভাবিক জিনিস তিনি লক্ষ করলেন। হিটার অন থাকা সত্যেও তার মেয়ের রুমে খুব ঠান্ডা অনুভুত হয়। মেয়েকে দেখে নিশ্চিন্ত মনে ক্রিস চলে যান। কিন্তু সামনে যে কি বিপদ অপেক্ষা করছে তার জন্য, তিনি ঘুণাক্ষরেও তা টের পাননা। একদিন ক্রিস তার মেয়ের ঘরে একটা উইজা বোর্ড দেখতে পান। তার মেয়ে বলে যে সে নাকি প্ল্যানচেট এর মাধ্যমে ক্যাপ্টেন হাউডি নামক একজনের সাথে তার কথা হয়। ক্রিস বেশি গুরুত্ব না দিলেও ব্যাপারটা কেমন যেন অস্বস্তিকর লাগে তার কাছে। এরপর একদিন ক্রিস তার বাসায় পার্টির আয়োজন করে। বেশ জমজমাট পার্টিতে হঠাৎ রেগান কিছু উদ্ভ্ট কান্ড বাধিয়ে বসে। ক্রিস মেহমানদের কাছে তার মেয়ে অসুস্থ বলে ক্ষমা চায়। কিন্তু মূল বিষয়টা সেও বুঝতে পারে না। এরপর থেকে রেগানের অবস্থার অবনতি হতে থাকে। ক্রিস অনেকদিন পর্যন্ত ডাক্তার দেখিয়েও ভাল ফল পায় না। রেগানের উদ্ভট আচরন, বিছানা তার থেকে শূন্যে উঠে যাওয়া, ডাক্তারদেরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করা, এছাড়া রেগানের কন্ঠ বদল হয়ে যাওয়া, সব মিলিয়ে বড়ই রহস্যজনক বিষয়ের সৃষ্টি হয়। ক্রিস পারে শেষ পর্যন্ত তার মেয়ের আসলে কি হয়েছে তা জানতে। আর কেনইবা হচ্ছে এসব।

পাঠ প্রতিক্রিয়াঃ খুব অল্প সংখক ভুতের গল্প আছে যা পড়ে ভয় না লাগলেও অন্তত ভাল লাগে। তার মধ্যে এটা অন্যতম। তবে কিছু বিষয় পরিষ্কার হয়নি। যেমন শয়তান সাধনার ব্যাপারটি।

লেখক পরিচিতিঃ
লিখেছেনঃ আবীর

এমন আরও বইয়ের নিয়মিত রিভিউ পেতে EduQuarks এর সাথেই থাকুন। প্রতি সপ্তাহের শনি এবং মঙ্গলবারে আমাদের বুক রিভিউ সিরিজের লিখা পাবলিশ হয়ে থাকে। আমাদের সাথে যুক্ত থাকতে যোগ দিন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে ও লাইক দিয়ে রাখুন ফেসবুক পেইজে। সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

No comments: