Header Ads

অ্যাপোলো ১৭ চন্দ্রাভিযান

অ্যাপোলো ১৭ চন্দ্রাভিযান

অ্যাপোলো ১৭ হল সর্বশেষ চন্দ্রাভিযান, যা ১৯৭২ সালের ডিসেম্বরে পরিচালিত হয় । এই মিশনে ইউগেন ক্যারমান ও হ্যারিসন স্কিমিট শেষ সর্বশেষ মানুষ হিসেবে চাঁদে পা রাখেন । এরপরে অদ্যাবধি আর কোন মহাকাশচারী চাঁদে পদার্পণ করেন নি । তবে স্পেস এক্স ও নাসা একজোট হয়ে মঙ্গলে মানুষ পাঠানোর প্রস্তুতি হিসেবে নতুন করে চন্দ্রাভিযান শুরু করার ঘোষণা দিয়েছে । চাঁদের আর নতুন করে কোন কিছু আবিস্কার ও মিশন পরিচালনা করে ফান্ড থেকে অর্থ অপচয় না করার তাগিদে এতদিন যাবত প্রায় ৪৫ বছর কোন লুনার মিশন পাঠানো হয় নি ! তাছার বিজ্ঞান বিমুখী বিভিন্ন সরকার নাসাকে পর্যাপ্ত ফান্ড বরাদ্দ না দেওয়াও অনেক বড় একটি কারন।

নিচের এই ছবিটি অ্যাপোলো ১৭ মিশনের, যা চাঁদের খাঁদ Taurus-Littrow valley থেকে ধারন করা হয়েছে । ১ম চিত্রের ডান দিকে যে মাকড়শার মত স্থাপনা দেখা যাচ্ছে টা মুলত লুনার মডিউল । এতে করেই মহাকাশচারীরা চাঁদে নেমেছে আর এতে করেই আবার চাঁদের কক্ষপথে মুল যানে ফেরত আসবে । বাম দিকের গাড়ির মত বস্তুটি আসলে চাঁদের লুনার রোভারের । এই লুনার রোভারে একটি টেলিভিশন ক্যামেরা যুক্ত করা আছে । যা পৃথিবীর সাথে সম্পৃক্ত।

অ্যাপোলো ১৭ চন্দ্রাভিযান
 
পৃথিবীতে ফেরত আসার পূর্বে লুনার রোভার ও মডিউলকে এমন ভাবে রাখা হয়েছিল যাতে করে রোভারের ক্যামেরা দিয়ে চাঁদ থেকে মডিউল উড্ডয়নের সময় সরাসরি দেখা যায় । আর তা সফল ভাবেই পৃথিবীর মানুষ দেখেছিল । নিচের শেষের দুই চিত্রে যা দেখা যাচ্ছে । রোভারের পিছন দিকে যে উপতাক্যা দেখা যাচ্ছে তা হোল লিট্রো খাঁদ, যা অস্ট্রিয়ান জ্যোতির্বিদ Joseph Johann von Littrow এর সম্মানার্থে নামকরন করা হয়েছে ! আর চিত্রেটি ধারন করা হয়েছে Taurus-Littrow উতাক্যা থেকে । উপাতাক্যার পিছনে আকাশে নীলাভ পৃথিবীকে দেখা যাচ্ছে । 

এই চিত্রটি ক্লিক করেছেন ইউগেন ক্যারমান । ইউগেন ক্যারমান ও হ্যারিসন স্কিমিট চাঁদে ৭৫ ঘণ্টা অতিবাহিত করেন । অপর মহাকাশচারী রোনাল্ড ইভান্স চাঁদকে প্রদক্ষিন করতে থাকেন । ভুতত্ত্ববিদ হ্যারিসন স্কিমিট সর্বপ্রথম চাঁদে কমলা মাটি দেখতে পান । ইউগেন ক্যারমান ও হ্যারিসন স্কিমিট প্রায় ১১০ কিলোগ্রাম চন্দ্রের মাটি ও পাথর পৃথিবীতে বয়ে নিয়ে আসেন ।

তথ্যঃ 
https://apod.nasa.gov/apod/ap171230.html
https://en.wikipedia.org/wiki/Apollo_17

Image Credit: Gene Cernan, Apollo 17, NASA; Anaglyph by Erik van Meijgaarden

লেখক পরিচিতি
লিখেছেনঃ জ্যোতির্বিদ্যা ও সৃষ্টিতত্ত্ব পেইজ

লিখাটি ভালো লেগে থাকলে সোশ্যাল নেটওয়ার্কে এবং নিজের বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন। নিয়মিত এমন লিখা পেতে EduQuarks এর সাথেই থাকুন। যুক্ত হোন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে এবং ফেসবুক পেইজে। সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

No comments: